সবিতা ভাবী: ভারতের প্রথম পর্নোগ্রাফী কার্টুন তারকা সৃষ্টির রোমাঞ্চকর ইতিহাস

বিশ্বের জানা-অজানা সব বিষয় নিয়ে আমাদের সাথে লিখতে আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন।

সবিতা ভাবী। নামই যার পরিচয়। পর্ন কমিক্স এর কথা উঠলেই হয়ত একশ জনের মধ্যে নব্বই জনই সবিতা ভাবীর কথা বলবেন। হতে পারে কারো কারো জীবনে সবিতা ভাবী একটা বড় অংশও দখল করে আছে। সবিতা ভাবী নামটি পড়তে যেয়ে হয়ত আপনার মুখে শয়তানি একটি হাসি ফুটে উঠেছে নয়ত ব্যক্তিগত কোন বিশেষ মুহুর্তের সুখময় স্মৃতিতে হারিয়ে গিয়েছেন। যাই হোক, এই সবিতা ভাবী ক্যারেকটারটির পরিচয়, জন্ম কিভাবে হয়েছিল, কিভাবেই বা এত জনপ্রিয় হয়েছে সেই বিষয়টা সবিস্তারে হয়ত আপনার জানা নাও থাকতে পারে। তবে চলুন জেনে নেই কেমন ছিল সেই রোমাঞ্চকর ইতিহাস।

সবিতা ভাবী ক্যারেকটার টি আসলে কে?

সবিতা ভাবী ভারতীয় ওয়েব- ভিত্তিক কমিক্স ধরনের কার্টুন পর্নোগ্রাফি চরিত্র। যা পুরো ভারতবর্ষের প্রথম পর্নোগ্রাফি কার্টুন তারকার স্বীকৃতি অর্জন করে। সবিতা ভাবী কার্টুন চরিত্রের মাধ্যমে একজন সাধারণ গুজরাটি গৃহিনীকে উপস্থাপন করা হয়েছে। যে গৃহিনী বিভিন্ন যৌন দুঃসাহসিক কাজ করে থাকে সেই সাথে সে এমন একজন চরিত্র যার কাছে ধর্ম, বর্ণ, পেশা বা জাত কোন মানুষই ভিন্ন নয়।

সবিতা ভাবিক্যারেকটার শুরুর চুপকথা:

প্রবাসী কিছু ভারতীয় যুবক মিলে সৃষ্টি করে বিতর্কিত এই কমিক চরিত্রের। সেই সব ‍যুবকদের মধ্যে একজন হলেন দেশমুখ, যদিও পুরো নাম তিনি প্রকাশ করেন নি। ব্যাবসায়ী দেশমুখ ও তার বন্ধুরা থাকতেন ব্রিটেনে। এক আড্ডায় বন্ধুদের গল্পের মাঝেই উঠে আসে ভারতের প্রথম পর্ন কমিকস্- এর পরিকল্পনা। দেশমুখ এক সাক্ষাৎকারে বলছিলেন যে, ‘আমরা বন্ধুরা পর্ন নিয়ে আলোচনা করছিলাম। সে সময় এক ব্রিটিশ বন্ধু হঠাৎ বলে, যে ভারতের নিজস্ব পর্নস্টার কেন নেই? সেখান থেকেই আমাদের মাথায় প্রথম এই আইডিয়াটা আসে।’

সবিতা ভাবী ক্যারেকটার চ্যালেঞ্জ ও আত্মপ্রকাশ:

সবিতা ভাবী ক্যারেকটার তৈরীতে প্রথম চ্যালেঞ্জ ছিল কেমন দেখতে হবে ক্যারেকটারটি। দেশমুখের সাক্ষাৎকার অনুসারে যেটা বোঝা যায় তারা ভেবেছিলেন, গুজরাতি হাউজওয়াইফ ও দক্ষিণ ভারতীয় আন্টির মধ্যে কাউকে মূল চরিত্র করবেন। কিন্তু, বুঝে উঠতে পারছিলেন না, কাকে করা উচিত। তাই দেশমুখ ও তার অন্য সাথীরা অনলাইনে একটা ভোটিং পোল তৈরী করেন। সেই ভোটিং পোল এ  অধিকাংশই গুজরাতি হাউজওয়াইফের পক্ষে রায় দেয়। এরপরই সবিতাকে গুজরাতি ভাবীর আদলে বানানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তারপর প্রায় ৬ মাস পরে ২০০৮ সালের মার্চ মাসে প্রথম সবিতা ভাবী কার্টুনটি একসাথে ইংরেজী, হিন্দি, উর্দু এবং তামিল এই চারটি ভাষায় একসাথে অনলাইনে মুক্তি দেওয়া হয়।

প্রথম গল্প নির্বাচন:

শুনতে অবাক লাগলেও প্রায় হাজার মেইল এসেছিল সবিতার প্রথম প্রকাশিত গল্প এর প্লট নিয়ে। অনেকে তো আবার তাদের বাস্তব অভিজ্ঞতা সবিতার গল্পে ব্যবহারের জন্য অনুরোধও করেছিলেন। তারপর সব বিবেচনায় যে গল্পটি ঠিক করা হয় সেটি ছিল, সেলসম্যান বাড়িতে…. বাকিটাতো সকলেরই জানা।’

সবিতা ক্যারেকটারকে ঘিরে বিতর্ক ও বিতর্কিত জনপ্রিয়তা:

সবিতা ভাবী নিয়ে মূল বিতর্ক শুরু হয় ২০০৮ এর শেষের দিকে যখন বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন এর দাড়ানোর ভঙ্গির সাথে সবিতা ভাবীর একটি সাদৃশ্য পাওয়া যায়। এটি নিয়ে ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। এমনকি ভারতীয় উদারবাদী ব্লগার এবং সাংবাদিকরাও সবিতা ভাবীর সমালোচনা করতে শুরু করেছিলেন, যাদের মধ্যে সাংবাদিক অমিত বর্মা ছিলেন উল্লেখযোগ্য। যার ফলে ভারতীয় সরকারের নজরে আসে বিষয়টি।

Savita Bhabhi, সবিতা ভারী
অমিতাভ বচ্চন এর দাড়ানোর ভঙ্গিমায় সবিতা ভাবী (Image Source: www.wikipedia.org)

পর্নোগ্রাফি ভারতে ঠিক বেআইনি বলা যাবে না তারপরও পূর্ণ নগ্নতা দেখানোর ফলে সবিতা ভাবীর ব্যাঙ্গচিত্রের মূল ওয়েবসাইটটি অশ্লীলতা আইনে ভারতীয় সরকার কর্তৃক সেন্সর করা হয়েছিল এবং নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল। এখানে উল্লেখ্য চরিত্রটি প্রাথমিকভাবে সহজলভ্য কমিক স্ট্রিপ হিসেবে একটি ওয়েবসাইটে মুক্ত করা হয়েছিল।
এরপর ২০০৯ সালে যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাইটনির্মাতা পুনিত আগরওয়াল, নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে অন্দোলনের প্রচেষ্টায় তার পরিচয় প্রকাশ করেন এবং সবিতা ভাবী ক্যারেকটারটি আইনসিদ্ধ করার জন্য আন্দোলন শুরু করেন।  তবে এক মাস পরে, তার পরিবারের চাপের কারণে তিনিও কমিক স্ট্রিপ বন্ধের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। তবে পরবর্তিতে ভারতীয় সরকারের নিষেধাজ্ঞা এড়াতে এটি একটি মালিকানাধীন সাবস্ক্রিপশন ভিত্তিক ওয়েবসাইটে রূপান্তর করা হয়েছিল।
এত কিছুর পরেও থেমে থাকেনি সবিতা ভাবীর জনপ্রিয়তা। শুধু পর্ন হিসাবে নয়, সবিতার সঙ্গে অনেকেই বাস্তবের অনেক চরিত্রের মিল খুঁজে পান। বা হয়তো পেতে চান। তাই সবিতাকে পর্ন হিসেবে না দেখে তাঁরা অন্যভাবেই দেখতেন। আর এই কারণেই হয়ত একদিনে ৫ লাখ ভিউয়ার পেত সবিতা ভাবীর ওয়েব সাইটটি।

সেলুলয়েডে সবিতা ভাবী:

এত কিছুর পরও ২০১৩ সালের মে মাসে মুক্তি পেয়েছিল সাবিতা ভাবী চলচ্চিত্র। শুধু একটি চলচ্চিত্রই নয় বলিউড চলচ্চিত্র প্রযোজকেরা শীতাল ভাবী শিরোনামের চলচ্চিত্রটি সাবিতা ভাবী থেকে অনুপ্রেরিত বলে দাবি করেন। অন্যদিকে বিখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা রাম গোপাল ভার্মা সবিতা ভাবী চরিত্রটি থেকে প্রভাবিত হয়ে একটি সেলুলয়েড চলচ্চিত্র বানানোর কথা চিন্তা করছেন বলে আই,বি,এন এর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছিল।

 

তথ্যসূত্র:

  1. “Savita Bhabhi’s creator comes clean, reveals identity”। com
  2. Nelson, Dean (২০১১-০৩-০৬)।“India’s cartoon porn star to become Bollywood film”। দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ। লন্ডন
  3. “Savita Bhabhi is the new face of freedom”।com
  4. “India’s Independent Weekly News Magazine”। Tehelka
  5. “Govt Bans Popular Toon Porn Site Savitabhabhi.com; Mounting Concern Over Censorship”।com
  6. “Savita Bhabhi Fights Censorship”।com।
  7. “Save Our Savita Bhabhi”। by Venkatesan Vembu, Daily News & Analysis, July 3, 2009.
  8. Moore, Matthew (১১ সেপ্টেম্বর ২০০৮)। “Indians hooked on pornographic web comic”। London: telegraph.co.uk
  9. Vats, Rohit (২৩ নভেম্বর ২০১২)।“Savita Bhabhi: Cartoon porn to Ram Gopal Varma’s film star? Bo”। IBN Live
  10. “Savita Bhabhi The Movie – Savita Bhabhi’s big screen adventure”। YouthTimes

 

 

71 Bangladesh
71 Bangladeshhttps://www.71bd.net
A unique name for all the new information on history, technology, new gadgets, daily livings, health, lifestyle, mysterious wildlife and many more.

Related Stories

Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

error: