করোনাকে মহামারী(pandemic) ঘোষণা করার পর থেকে আফ্রিকাতেই একমাত্র কম সংক্রমণ দেখা গেছে।আফ্রিকা মহাদেশ প্রায় ১.৩ বিলিয়ন লোকের বসবাস ,কিন্তু তিনশোরও কম করোনাতে আক্রান্ত হয়েছে এখন অব্দি।আফ্রিকার ৫৪ টি দেশে মিলে মাত্র ৩০০ জনের মধ্যে এ সংক্রমন ঘটেছে, যেগুলো ইউরোপ ও পূর্ব এশিয়ার পর্যটকদের মাধ্যমে ঘটেছে।বিজ্ঞানীরা আফ্রিকার এই কম সংক্রমণের হার নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।তারা এই বিষয়ে যে হাইপ/মতামত দিয়েছেন সেগুলোর মধ্যে জলবায়ুর জন্য সংক্রমণের হার কম।কিন্তু আরেকদল মনে করেন , ইবোলা মহামারিতে যে অভিজ্ঞতা আফ্রিকা মহাদেশবাসী অর্জন করেছে , সেই অভিজ্ঞতাই করোনার মতো মহামারীকে প্রতিহত করতে সাহায্য করেছে। অন্যদিকে আফ্রিকা মহাদেশের মানুষের স্বাস্থ্যসেবা অবকাঠামো ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করেছে। সম্প্রীতি চীনা গবেষকরা অভিমত ব্যক্ত করেছেন যে , উচ্চ তাপমাত্রা ও আদ্রতা করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হারকে ধীর করে দেয়।কিন্তু অন্য গবেষকরা চীনদের এই মতামতের সাথে একত্তা প্রকাশ করেননি।ঘানা এবং কেনিয়া করোনা আক্রান্ত দেশ সমূহ থেকে পর্যটকদের আগমন বন্ধ ঘোষণা করেছে ।অন্যদিকে কঙ্গো করেন্টাইন পদ্ধতির প্রয়োগ শুরু করেছে , বিশেষ করে যারা ইটালী,ফ্রান্স,চাইনা ও জার্মানি থেকে আসছেন তাদের জন্য আফ্রিকা ইতিমধ্যে চায়নার সাথে বাণিজ্যিক যোগাযোগ বন্ধ করেছে। সর্বোপরি সংক্রমিত দেশগুলোর সাথে যোগাযোগ বন্ধ এবং প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে আফ্রিকা মহাদেশ এখনও ভয়াবহ কোনো অবস্থায় যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here